EUR/USD বর্তমান রেট ১.১২৭৮

  • আজকে আমেরিকার স্বাধীনতা দিবস, যেকারনে মার্কেটে তেমন একটা মুভ নেই। আগামী NFP তে যেকোন একদিকে ব্রেক আউট হবে।
  • ১.১৩০০ এরিয়ার নিচে থাকা EURUSD এর জন্য রিস্কি কিছুটা।

EUR/USD এখনো অনেকটাই কন্সোলেডিশন মোডেই আছে ১.১৩০০ এরিয়ার নিচে। ডেইলি বেসিসে যদিও কিছুটা আপ, কিন্তু ১.১৩০০ এরিয়ার নিচে থাকা ডাউন ট্রেন্ড প্রিসিস্ট করে। আমেরিকান মার্কেটে হলিডে থাকায়, মার্কেট ভলিউম কম, যেকারনে টাইট রেঞ্জের মধ্যে এখনো মার্কেট।

আর মার্কেট মুভের জন্য ম্যাক্রো ইকোনোমিক তেমন কোন ডাটাও ছিলো না ইউরোজোনের। ১.১৩২০ এর উপরে স্ট্যাবল হতে পারলে, অন্যরকম কিছু একটা হতে পারে, আদার ওয়াইজ টাফ হবে EUR/USD উঠা টেকনিক্যালি

আজকে বড় ধরনের মুভের কোন সম্ভবনা নেই মার্কেটে, আগামীকাল NFP কে সামনে রেখে বড় ধরনের মুভ হবে।

ফান্ডামেন্টালি এখনো বেশ রিজন আছে EUR/USD উঠার, বাট সবকিছুর মুলে সেই NFP এবং আর্নিং।

NFP কেমন আসতে পারে?

ফরেক্স মার্কেটে একজেক্টলি বলা অসম্ভব কোন রিপোর্ট কেমন আসবে ( কয়েকটা রিপোর্ট ছাড়া, আর NFP এর মধ্যে পরে না। বাট আইডিয়া করা যায় মাত্র, এবং সেগুলি কাজও করে মেজরিটি সময়। যদিও NFP ট্রেডের জন্য আলাদা একটা মেথডই আছে। রিপোর্ট যেমনই আসুক NFP তে প্রফিট বের করা যাবে NFP  এর সময়। যাইহোক, এটা আমার লেখার মুল উদ্দেশ্য না NFP তে কিভাবে ট্রেড করবো। NFP কেমন আসতে পারে সেটা নিয়ে আলোচনা করবো কিছুটা।

NFP কেন ভালো আসতে পারে?

১। জব চ্যালেঞ্জার রিপোর্ট আগে থেকে ভালো আসা।

২। আইএসএম ম্যানুফ্যাকচারিং রিপোর্ট ভালো আসা।

৩। জব কন্টিনিউ ক্লেইম ভালো আসা।

৪। ADP  আগের চেয়ে ভালো আসা, বাট এটা প্রত্যাশার চেয়ে কম থাকার খুব একটা হেল্প করবে না, যদিও আগের চেয়ে ভালো।

NFP কেন খারাপ আসতে পারে?

১। আইএসএম নন ম্যানুফ্যাকচারিং রিপোর্ট খারাপ আসা।

২। জব লেস ক্লেইম বেড়ে যাওয়া।

৩। কঞ্জিউমার কনফিডেন্স ড্রপ করা।

৪। মিশিগান কনজিউমার কনফিডেন্স ড্রপ করা।

৫। আইএসএম ম্যান্যফ্যাকচারিং এবং নন ম্যানুফ্যাকচারিং উভয়ের এমপ্লয়মেন্ট কম্পোনেন্ট খারাপ করেছে।

তার মানে NFP ভালো আসার চেয়ে খারাপ আসা অনেকটাই সহজ বর্তমান প্রেক্ষাপটে। আর ডলারের সাম্প্রতিক রিপোর্টগুলিও মিক্সড।

অন্যদিকে, ইউরোর ম্যাক্রো-ইকোনোমিক রিপোর্টগুলি কিছুটা ঘুরে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু ECB এখনো রেট কাট করতে পারে নেক্সট  সিপিআই রিপোর্ট খারাপ আসলে। আর ইউরোজোনের উপর ৫% ট্যারিফ তো বসাইছেই আমেরিকা।

আর ট্রাম্প গতকাল টুইটে ইউরোজোন এবং চিনকে ব্লেইম করেছে তারা ম্যানুপুলেট করে ইউরো এবং রেম্বেলেকে দুর্বল করে রাখছে। আমেরিকান হলিডে থাকার কারনে এখনো এটার প্রভাব মার্কেটে পরে নাই। হয়তো আগামীকাল পরতে পারে। ট্রাম্পের এই টুইটে কিছুটা হলেও ডলার দুর্বল হওয়ার কথা, সাথে NFP খারাপ আসলেতো কথাই নেই। সো দেখা যাক এনএফপি রিডিং কেমন আসে।

EUR/USD টেকনিক্যাল লেভেল

বর্তমান রেট থেকে মেজর সাপোর্ট আছে, ১.১২৬৫ এরিয়াতে। ১.১২৬৫ এরিয়া ব্রেক আউট হলে নেক্সট টার্গেট ১.১২৪০ এরিয়া। ১.১২৪০ এরিয়া ব্রেক আউট হলে ফাইনাল টার্গেট ১.১২১০ এরিয়া। ১.১২১০ এরিয়ার নিচে মার্কেট আসা কঠিন এটলিস্ট বর্তমান সিচুয়েশনে।

অন্যদিকে, বর্তমান রেট থেকে মেজর রেসিস্টেন্স আছে ১.১৩১৫ এরিয়াতে। ১.১৩১৫ এরিয়া ব্রেক আউট হলে নেক্সট টার্গেট ১.১৩৫০ এরিয়া এবং ফাইনালি ১.১৩৮৫/১.১৪০০ এরিয়া। ১.১৪০০ এরিয়ার উপরে যাওয়াটাও টাফ ইউরোর প্রেজেন্ট সিচুয়েশনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here