• সাধারন পুঁজিবাদ
    –আপনার দুইটা গাভী আছে আছে
    –একটা গাভী সেল করে দিয়ে ১ টা ষাড় কিনেন।
    –বছরে বছরে গরু বাছুর দিবে, ইকোনোমি গ্রো করে।
    –আপনি আজীবন একটা প্রফিট পেয়ে যাবেন বছরে বছরে।
  • আমেরিকান পুঁজিবাদ
    –আপনার দুইটা গাভী আছে।
    – পাবলিক লিস্টেট কোম্পানির কাছে ৩ টা গাভী সেল করবেন। ব্যাংক এর মাধ্যমে ঋন নিয়ে , ডেবিট / ইকুইটি সোয়াপ করে ৪ টা গরু বানাবে্ন। ট্যাক্স অব্যহতি দিবে ৫ টা গরু করবেন। আর বাৎসরিক রিপোর্টে বলবেন আপনার কাছে গরু আছে ৮ টা। কোথা থেকে আসলো কোন প্রশ্ন করা চলবে না। ১ টা গরু বেচে দিবে্ন  কে দেশের প্রেসিডেন্ট হবে সেটা নির্ধারন করতে। ব্যালেন্স শীট রিপোর্টের পর ৯টা গরুর পাবলিক লিস্টেড কোম্পানিগুলির কাছে শেয়ার সেল করবেন।
  • ফরাশী পুঁজিবাদ
    –আপনার দুইটা গাভী আছে
    –আপনি ৩ টা গাভীর জন্য রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করবেন কিন্তু কোন রকম চেষ্টা করবে না।
  • জাপানীজ পুঁজিবাদ
    –আপনার দুইটা গাভী আছে
    –আপনি এই দুইটা গাভীরে যত্ন আত্নী করবেন, টেকনলোলোজির যথাসাধ্য ব্যাবহার করে আগের চেয়ে ২০ গুন বেশী দুধ উৎপাদন করবেন।
    –সুন্দর কইরা কার্টুন বানিয়ে সারা দুনিয়া জুড়ে সেল করবেন এখন।
  • জার্মান পুঁজিবাদ
    –আপনার দুইটা গাভী আছে,
    –গরু দুইটাকে রি-ইঞ্জিনিয়ারিং করে গরু দুইটাকে ১০০ বছর বাচিয়ে রাখবেন, মাসে ১ দিন খাবার দিয়ে দুধ দোহাতেই থাকবেন। দুধ বেইচা চলবেন।
  • ব্রিটিশ পুঁজিবাদ
    –আপনার দুইটা গরু আছে
    –কিন্তু দুইটাই পাগল
  • ইতালিয়ান পুঁজিবাদ

    –আপনার দুইটা গরু আছে, কিন্তু আপনি জানেন না সেই গরু দুইটা কই।
  • সুইজ পুঁজিবাদ
    –আপনার গরু আছে ৫০০০ কিন্তু একটাও আপনার না।
    –যারা আপনার কাছে গরু রাখছে প্রফিট তো দিবেনই না উলটা তাদের থেকে উলটা চার্জ কাটবেন মাসে।
  • চাইনিজ পুঁজিবাদ
    –আপনার ২ টা গরু আছে
    – ২ গরুর দুধ দোহানোর লোক রাখছেন ৩০০ জন।
    –এখন দুনিয়ার সবাই জানবে আপনার দেশে কোন বেকার নাই। প্রোডাক্টিভিটি অনেক হাই। যে মিডিয়া সত্যি পেশ করবে তারে জেলে সেন্ড করে দিবেন।
  • নিউজিল্যান্ড পুঁজিবাদ
    –আপনার গরু আছে ২ টা
    –দুইটাই দেখতে খুব সুন্দর।


1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here