• EUR সেল বেড়ে হয়েছে  ৪৭ হাজার, আগের সপ্তাহে ছিলো  ৪৪ হাজার সেল। সেল বেড়েছে আগে থেকে    ৩ হাজার।
  • GBP সেল বেড়ে হয়েছে  ৯৬ হাজার, আগের সপ্তাহে ছিলো  ১ লাখ ২ হাজার সেল। সেল  কমেছে আগে থেকে   ৬ হাজার।
  • JPY বাই বেড়ে হয়েছে  ২৫ হাজার,  আগের সপ্তাহে ছিলো  ১১ হাজার সেল। বাই  বেড়েছে আগে থেকে    ১৪ হাজার।
  • CHF সেল বেড়ে হয়েছে  ১৩ হাজার,  আগের সপ্তাহে ছিলো  ১৬ হাজার সেল। সেল কমেছে আগে থেকে   ৩ হাজার।
  • AUD সেল বেড়ে হয়েছে  ৬৩ হাজার,  আগের সপ্তাহে ছিলো  ৫৫ হাজার সেল। সেল বেড়েছে আগে থেকে    8 হাজার।
  • NZD সেল বেড়ে হয়েছে  ১৩ হাজার,  আগের সপ্তাহে ছিলো  ১২ হাজার সেল। সেল বেড়েছে আগে থেকে    ১ হাজার।
  • CAD বাই বেড়ে হয়েছে   ১৮ হাজার,  আগের সপ্তাহে ছিলো  ২৮ হাজার বাই। বাই  কমেছে আগে থেকে   ১০ হাজার।

সার্বিক অবস্থা।

  • JPY এবং CAD এ আগে থেকে বাই বেড়েছে। যেখানে অন্য সকল মেজর পেয়ারে সেল বেড়েছে।  
  • JPY তে বাই বেড়েছে প্রায় ১৪ হাজার কন্ট্র্যাক্ট। যেটা ২০১৬ সালের নভেম্বর মাসের মধ্যে সর্বচ্য।
  • CAD অনেকদিন ধরেই বাই মোডে থাকলেই আগে থেকে ১০ হাজার কন্ট্র্যাক্ট বাই কমেছে CAD থেকে। তবে এখোনো বাই মোডেই বেশী আছে ট্রেডাররা।
  • GBP তে আগে থেকে সেল কিছুটা কমলেও, এখনো সেলারের সংখ্যাই বেশী নন কমার্শিয়াল কন্ট্র্যাক্টে।

ট্রেড আইডিয়াঃ সেফ হেভেন হিসেবে JPY এখনো ইনভেস্টরদের কাছে বাই এর তালিকায় ১ম পছন্দে আছে। এবং সেলের দিকে এবং EUR আছে সেলের দিকে এগিয়ে। সেক্ষেত্রে আমরা আগামী সপ্তাহে EUR/JPY  কারেকশন করে উঠলে ১১৯.০০ থেকে ১২০.০০ এরিয়ার মধ্যে পেলে সহজেই সেল মোডে থাকতে পারি। এতে করে ঝুঁকি কমবে এবং প্রফিটের সুযোগ বাড়বে।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here